NarayanganjToday

শিরোনাম

প‌রি‌বেশ অ‌ধিদপ্ত‌রের না‌মে প্রতারণা, সেই চারজন রিমা‌ন্ডে


প‌রি‌বেশ অ‌ধিদপ্ত‌রের না‌মে প্রতারণা, সেই চারজন রিমা‌ন্ডে

সোনারগাঁয়ে পরিবেশ অধিদপ্তরের কর্মকতা পরিচয়ে ভূয়া তিন কর্মকর্তাসহ গ্রেফতার ৪ জনকে চাঁদাবাজীর মামলায় ১ দিনের রিমান্ডে নিয়েছে পুলিশ। 

বৃহস্পতিবার (১০ জুন) দুপুরে নারায়নগঞ্জের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো.শাকিল আহাম্মেদের আদালত এই আদেশ দেন।এর আগে পুলিশ মামলার সুষ্ঠ তদন্তের জন্য ৫ দিনের রিমান্ড আবেদন করে।

রিমান্ডকৃতরা হলো-দিনাজপুরের বিরামপুর উপজেলার পূর্ব জগন্নাথপুর গ্রামের জমিরউদ্দীন মন্ডলের ছেলে মুজাহিদুল ইসলাম মানিক, নাটোর জেলার নালপুর উপজেলার গন্ডবিল গ্রামের আব্দুল লতিফের ছেলে সাইফুল ইসলাম সেন্টু, ডেমরার রামৈল গ্রামের জমির আলীর ছেলে কামরুজ্জামান ও ময়মনসিংহের ধোবাউড়া থানার জাঙ্গালিয়া পাড়া গ্রামের মৃত হেলাল উদ্দিনের ছেলে মো. সরাফ মিয়া।

রিমান্ডের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন নারায়ণগঞ্জ কোর্ট পুলিশের ইন্সপেক্টর মো. আসাদুজ্জামান।

প্রসঙ্গত,গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় উপজেলার জামপুর ইউনিয়নের বস্তল এলাকায় এ্যাম্পেয়ার স্টীল কোম্পানিতে পরিবেশ অধিদপ্তরের কর্মকর্তা পরিচয় দিয়ে কোম্পানির ভিতরে প্রবেশ করে। এসময় ওই কোম্পানির কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের ভয়ভীতি দেখিয়ে বিভিন্ন কাগজ পত্র দেখতে চায়। তাছাড়া বিষয়টি মীমাংসার জন্য ৫ লাখ টাকা দাবি করেন। বিষয়টি এ্যাম্পেয়ার স্টীল কোম্পানির মালিক আবুল কালামকে অবগত করেন। তাদের সঙ্গে কথা বলার এক পর্যায়ে কোম্পানির লোকজনের সন্দেহ হয়। পরে তাদের আটক করে পুলিশে খবর দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (খ- অঞ্চল) মো. বিল্লাল হোসেন ও তালতলা ফাঁড়ি পুলিশের ইনচার্জ মো. ইকবাল হোসেন ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিবেশ অধিদপ্তরের ভূয়া কর্মকর্তা বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে তাদের গ্রেফতার করে। এসময় তাদের ব্যবহৃত একটি মাইক্রোবাস ( ঢাকা মেট্রো- ১১-৭৫৪৬) ও গাড়ি থেকে এক ক্যান বিয়ার উদ্ধার করে পুলিশ। গ্রেফরকৃতদের বিরুদ্ধে মঙ্গলবার রাতে এ্যাম্পেয়ার স্টীল কোম্পানির কর্মচারী আলী আকবর বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন। এছাড়াও পুলিশের পক্ষ থেকে একটি মাদক মামলা দায়ের করা হয়।

উপরে