NarayanganjToday

শিরোনাম

`‌পৌর শহীদ মিনার` নাম নি‌য়ে বাদ‌লের আপ‌ত্তি


`‌পৌর শহীদ মিনার` নাম নি‌য়ে বাদ‌লের আপ‌ত্তি

নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. আবু হাসনাত শহীদ মো.বাদল বলেছেন, নারায়ণগঞ্জ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার কিভাবে কেন্দ্রীয় পৌর শহীদ মিনার হয়? কোন সাহসে সিটি করপোরেশন এ কথাটি বলেন। এর জবাব কি আপনারা দিতে পারবেন? এ কথাটুকু সংশোধনের প্রয়োজন আছে কি নাই?

মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) নগরীর জিয়া হল প্রাঙ্গনে প্রয়াত জননেতা একেএম শামসুজ্জোহার জন্য দোয়া মাহফিল ও আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, শামসুজ্জোহা সাহেবের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করছি। বার বার মনে পড়ে, খানপুর হাসপাতালে আপনার পাশে থেকেছি। আমার মনে পড়ে নারায়ণগঞ্জ হাসপাতালে আপনার পাশে থেকে দোয়া নেওয়ার চেষ্টা করেছি। একদিন দুপুর ১১টার দিকে আমি জোহা ভাইয়ের দিকে তাকালাম, তারপর যখন শামীমের দিকে তাকালাম তখন দেখি তার চোখ দিয়ে টপ টপ করে পানি ঝড়ছে। আমার আর বুঝার বাকি রইলো না যে প্রাণপ্রিয় নেতা আমাদের মাঝে আর নেই।
‘আমি ছাত্র সংগ্রাম পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক হিসেবে নারায়ণগঞ্জের উন্নয়নের ১৪ দফা দিয়েছিলাম, এই বাদল হেলাল পরিষদ। আমাদের দাবি ছিলো একটা বড় জায়গায় পূর্ণাঙ্গ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার করা। আমাদের জোহা চাচা বেঁচে থাকবে চীর অম্লান হয়ে।’

অনুষ্ঠানে জেলা মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম সংসদের আহ্বায়ক এইচ এম রাসেলের সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু হাসনাত শহীদ মো. বাদল, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক খোকন সাহা, সিনিয়র সহসভাপতি চন্দন শীল, মুক্তিযুদ্ধ প্রজন্ম কেন্দ্রীয় কমিটির চেয়ারম্যান মেহেদী হাসান, মহানগর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি রবিউল হোসেন, জেলা আদালতের পিপি ওয়াজেদ আলী খোকন,মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জাকিরুল আলম হেলাল, মহানগর স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি জুয়েল হোসেন, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সাফায়েত আলম সানি, জেলা হকার্সলীগের সভাপতি রহিম মুন্সি, ব্যাংক কর্মচারি ফেডারেশনের সভাপতি আব্দুল কাদির প্রমুখ।

উপরে