NarayanganjToday

শিরোনাম

শহরের বোস কেবিনে চায়ের আড্ডায় আইভী


শহরের বোস কেবিনে চায়ের আড্ডায় আইভী

একদিকে ভিপি বাদলকে আগামী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র পদে ঘোষণা দিলেন সেলিম ওসমান অন্যদিকে তাঁর ছোট ভাই মেয়র আইভীকে ইঙ্গিত করে শামীম ওসমান বলেন, গত ৩-৪ দিন ধরে একই মানুষের বিরুদ্ধে শুধু অভিযোগই শুনতেছি। আজকে নারায়ণগঞ্জ শহরে দেখলাম হুজুররা ক্ষেপছে। আরেক দিকে দেখি হিন্দুরা ক্ষেপছে। এখন যদি আমিও কিছু বলি তাহলে বিষয়টা খারাপ দেখা যায়। তাই কিছু বললাম না।

শুক্রবার বিকেলে গোগনগরে এক অনুষ্ঠানে সেলিম ওসমান ও ওসমানী পৌর স্টেডিয়ামে শামীম ওসমানের এই বক্তব্যের কিছু সময় পরেই মেয়র আইভীকে দেখা যায় শহরের ঐতিহ্যবাহী বোস কেবিনে চায়ের আড্ডায়। চা পানের ফাঁকে মেতে উঠছেন আড্ডায়। চেহারায় নেই কোন দুশ্চিন্তার ভাঁজ কিংবা উদ্বেগ।

এদিকে বাদ জুম্মা চাষাড়া বাগে জান্নাত মসজিদের সামনের সড়কে মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভীর বিরুদ্ধে সমাবেশ করেছে ওলামা পরিষদের ব্যানারে হেফাজত ইসলামের নেতাকর্মীরা। সেই সমাবেশে আইভীর কাল হাত ভেঙ্গে দাও গুড়িয়ে দাও স্লোগানও দেয়া হয়েছে। এইসময় তারা মেয়রের ধর্মীয় বিশ্বাস, পোশাক নিয়েও কটাক্ষ করেন। মেয়রের নির্বাচনী প্রচারণার সেই ছবিকে মন্দিরে দেবতার সামনে মাথায় সিঁদুর দিয়ে প্রণাম করারও অপব্যাখ্যা দেন। মসজিদ মাদরাসা ইস্যুতে নারায়ণগঞ্জে আরেকটি শাপলাচত্বরের হুশিয়ারিও দেন হেফাজত ইসলামের এক নেতা।

শহর জুড়ে সেলিম ওসমান-শামীম ওসমানের বক্তব্য ও ওলামা পরিষদের আইভী বিরোধী সমাবেশকে ঘিরে আলোচনা সমালোচনা তৈরি হলেও মেয়র ছিলেন নির্বিকার। তাই আত্মীয় শফিকুল ইসলাম লিটন, আওয়ামী লীগ নেত্রী রানু খন্দকারসহ আরো কয়েকজনকে সাথে নিয়ে বোস কেবিনে চায়ের আড্ডায় ব্যস্ত সময় পার করেন।

দীর্ঘক্ষন বোস কেবিনে আড্ডাকালে তাকে অনেকের সাথে খোশমেজাজে আলাপ করতে দেখা যায়। এইসময় তিনি বোস কেবিনের কর্মচারীদের সাথে কথা বলেন এবং তাদের খোজ খবর নেন। মেয়র আইভীকে সামনে পেয়ে বোস কেবিনে উপস্থিত অনেকেই মেয়রের সাথে সেলফি তুলতে দেখা গেছে।

উপরে