NarayanganjToday

শিরোনাম

আমরা চাই খোকন সাহা জে‌লে যাক : শামীম ওসমান


আমরা চাই খোকন সাহা জে‌লে যাক : শামীম ওসমান

নারায়ণগঞ্জ -৪ আসনের সাংসদ সদস্য একেএম শামীম ওসমান বলেছেন,খোকন সাহার বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে,আমরা চাই মামলাটা হোক।খোকন সাহা দীর্ঘদিন ধরে জেলে যায় না,আমরা চাই জেলে যাক।এরপর দেখি নারায়নগঞ্জটা কিভাবে হয়,আপনারা সাংবাদিকরা লাখ লাখ ছবি তুলার সুযোগ পাবেন।এই দিনটার জন্য আমরা অপেক্ষা করতাছি।আমরা চাই খোকন সাহা জেলে যাক,খোকন সাহাকে জেলে নিলে মনে হয় আবার একটু আগের বয়সে আমরা ফিরে জেতে পারি।তখন সাংবাদিকরা ছবি তুলার অভাব পাইবেন না,শুধু নারায়ণগঞ্জর মাথা আর মাথা দেখবেন অন্য কিছু দেখতে পারবেন না।আমরা জানি কি করতে হবে।

বৃহস্পতিবার (২৮ জানুয়ারী) মধ্যরাতে আওয়ামী পূর্ণ প্যানেলের বিজয়ের পর বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে আওয়ামী লীগের এই সাংসদ বলেন,যখন জয়লাভ করার জন্য দুটি দল খেলা করে তখন খেলাটি সুন্দর হয়।বিকাল ৫ টা বাজে যখন ভোট গননা শেষ হয়েছে তখন একটি মৃদু উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে।যদি এই উত্তেজনা সৃষ্টি না হতো তাহলে ভিডিও করা যেতো না।আমরা ওই উত্তেজনা সাংবাদিকদের উৎসর্গ করলাম।

শামীম ওসমান বলেন,বিএনপির হাত পা ভেঙ্গে দেওয়া আমি পত্রপত্রিকায় দেখেছি। আর যিনি বলেছেন তিনি বিএনপির একজন সিনিয়র নেতা। একজন লার্নেড লয়ার যদি বলে হাত পা ভেঙ্গে দিবো। তাহলে আমাদের ভবিষ্যত প্রজন্ম শিখবে কি। যেহেতু তিনি ক্ষমা চান নাই। আমাদের তো ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে কিছু শিখাতে হবে। তাই আমি তার হয়ে ক্ষমা চেয়ে নিছি।আমি আমার দলীয় মনোনিত প্রার্থীর ক্যাম্পে না গিয়ে বিএনপির ক্যাম্পে গিয়েছি। এবং আমার মনে হয়, এই জায়গাতে আমাদের একটা সৌজন্যতাবোধ থাকা উচিত।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, জেলা আদালতের রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী এড.ওয়াজেদ আলী খোকন,বারের সাবেক সভাপতি হাসান ফেরদোস জুয়েল,নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ভিপি বাদল,মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক খোকন সাহা,যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক শাহ নিজাম,সাংগঠনিক সম্পাদক জাকিরুল আলম হেলাল,মহানগর যুবলীগের সভাপতি শাহাদাৎ হোসেন ভূইয়া সাজনু,সেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি জুয়েলসহ অন্যান্য আওয়ামী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

উপরে