NarayanganjToday

শিরোনাম

‌তিন মাস সজাগ থা‌কেন : শামীম ওসমান


‌তিন মাস সজাগ থা‌কেন : শামীম ওসমান

নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ একেএম শামীম ওসমান বলেন, সামনের দুই- তিনটা মাস একটু সজাগ থাকবেন, সচেতন থাকবেন। করোনার মত অনেক বিষাক্ত জিনিস বাংলাদেশে ঢুকেছে। চোখে দেখা যায় না। করোনাতো মোকাবেলা করতে পারবো কিন্তু এ বিষাক্ত পদার্থগুলো যারা দেশটাকে ধ্বংস করতে চায় ওরা দেশের আনাচে কানাচে ঢুকে গেছে। করোনা চলে যাবে যেভাবে কলেরা চলে গেছে, যেভাবে পোলিও চলে গেছে, যেভাবে যক্ষাও চলে গেছে ইনশাআল্লাহ সেইভাবে করোনাও চলে যাবে। কিন্তু এই বিষাক্ত পদার্থগুলো যারা নাকি সিরিয়া সৃষ্টি করেছে, যারা আজকে লেবানন সৃষ্টি করেছে এবং ইরাক-আফগানিস্তানের মত দেশ সৃষ্টি করেছে তারা যদি তাদের কার্যক্রমে সফল হয়ে যায় তাহলে কিন্তু আমরা একটি সুন্দর দেশ আমাদের ভবিষ্যত প্রজন্মকে দিয়ে যেতে পারবো না। তাই আমার মনে হয় এক্ষেত্রে আমাদের দলমত নির্বিশেষে এক হয়ে কাজ করতে হবে।

মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) দুপুরে নগরীর খানপুর ৩’শ শয্যা হাসপাতালে কোভিড-১৯ র‍্যাপিড অ্যান্টিজেন পরীক্ষার উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

সাংসদ বলেন, পৃথিবী যখন করোনায় বিধ্বস্ত আমরা কিন্তু আমাদের অর্থনীতিকে মজবুত করে আমরা মধ্যবিত্ত আয়ের দেশের তালিকায় ঢুকতে যাচ্ছি। সুইজারল্যান্ড, কানডা, ইউরোপের বড় বড় দেশগুলো যারা আমাদেরকে গ্লানিবাক্য দিতো তাদের দেশ কিন্তু তছনছ হয়ে যাচ্ছে। আমাদের দেশের ডাক্তার, নার্স এবং সাধারণ মানুষ যারা আছে সবাই মিলে আল্লাহর রহমতে আমরা চেষ্টা করেছি এবং আমরা স্বাস্থ্যসেবা খাতে বিশ্বে প্রথম ২০ টি দেশের মধ্যে আছি। ডব্লিউএইচও বলেছিলো বাংলাদেশে নাকি ২০ লাখ ৯০ হাজার লোক মারা যাবে। মনে হলো ঐদিক দিয়া আল্লাহর ওহী মনে হয় নাজিল হয়ে গেছে। বাংলাদেশে ২০ লাখ লোক মারা যায় নাই। যে সংখ্যক লোক মারা গেছে গত তিন-চার মাসে তার থেকে ডাবল লোক মারা গেছে সড়ক দুর্ঘটনায়।

এসময় ৩’শ শয্যা হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. আবুল বাসাররের সভাপতিত্বে ও আবাসিক চিকিৎসক ডা. সামসুদ্দোহা সঞ্চয়’র সঞ্চালনায় আরো উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(সদর) সুবাস চন্দ্র সাহা, নারায়ণগঞ্জ ক্লাব সভাপতি তানভীর আহমেদ টিটু, নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএমএ’র সাধারণ সম্পাদক ডা. দেবাশীষ সাহা, জেলা স্বাচিপ’র সাধারণ সম্পাদক বিধান চন্দ্র পোদ্দার প্রমুখ।

উপরে