NarayanganjToday

শিরোনাম

দেওভোগের মানুষ প্রতিবাদ না করলে না.গঞ্জ বিলিন হয়ে যেতো: মেয়র আইভী


দেওভোগের মানুষ প্রতিবাদ না করলে না.গঞ্জ বিলিন হয়ে যেতো: মেয়র আইভী

নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন মেয়র ডা: সেলিনা হায়াৎ আইভী বলেছেন,আজ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস। যার কথা না বললেই নয়, যে রাখালের জন্ম না হলে এ দেশ স্বাধীন হতো কি না, এ বাংলাদেশ হতো কি না, আমরা কিন্তু জানিনা। সেই বাংলাদেশে স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে আজকে স্মরণ করছি। সেই সাথে স্মরণ করছি, সেসব মুক্তিযোদ্ধাদের তাদের আত্মত্যাগে আমরা এ বাংলাদেশ পেয়েছি।

রোববার (১০ জানুয়ারি) বিকালে শহরের বাবুরাইল- দেওভোগ বড় মসজিদ সড়কের নামকরন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। সড়কটিকে ‘মুক্তিযোদ্ধা সড়ক’ নামে নামকরন করা হয়।  
তিনি বলেন, জাতির পিতা দলমত নির্বিশেষে সকলকে ডাক দিয়েছিলো। তখন কিন্তু কোন দল ছিলো না। কৃষক শ্রমিক জনতা তখন সবাই যুদ্ধে যাপিয়ে পড়েছিলো। যে বিষয়টি মাথায় রেখে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন ২৭টি ওয়ার্ডে মুক্তিযোদ্ধাদের নামে সড়কের নাম করনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে এবং সেটা করে যাচ্ছে।
তিনি আরও বলেন, এই ১৬নং ওয়ার্ডে জন্ম নিয়েছিলো আলী আহাম্মদ চুনকা, যিনি দীর্ঘদিন পৌরসভার নেতৃত্ব দিয়েছিলেন। এখানে জন্ম নিয়েছিলো নাজিম উদ্দিন মাহমুদ। তিনি দীর্ঘ ৪ বছর পৌর সভার নেতৃত্ব দিয়েছিলেন। তার পরে প্রশাসক ছিলো। এরপর আমি এসে ২০০৩ সাল ১৮ বছর যাবত নেতৃত্ব দিয়ে আসছি। এ জন্য আমি প্রায় সময় বলে থাকি, ২৭টি ওয়ার্ডের রাজধানী হলো দেওভোগ। কেন বলে থাকি? কারন হচ্ছে, সমস্ত অন্যায়-অবিচারের প্রতিবাদে কিন্তু এ দেওভোগবাসী দাঁড়িয়েছে। এ দেওভোগের মানুষ যদি প্রতিবাদ না করতো, তাহলে এ নারায়ণগঞ্জ কিন্তু অনেক আগেই বিলিন হয়ে যেতো।
এসময় উপস্থিত ছিলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা তমিজ উদ্দিন রিজভী, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম, নাসিক প্যানেল মেয়র-১ আফসানা আফরোজ বিভা, কাউন্সিলর কবির হোসেন, সাবেক প্যানেল মেয়র হাজী ওবায়েদ উল্লাহ্, মনিরুজ্জামান মনির, মহানগর যুবলীগের সাধারন সম্পাদক আহাম্মদ আলী রেজা উজ্জল প্রমূখ।  

 

উপরে