NarayanganjToday

শিরোনাম

চাষাড়ায় ফিল্মি স্টাইলে যুবককে মারধর করায় গ্রেফতার ৩


চাষাড়ায় ফিল্মি স্টাইলে যুবককে মারধর করায় গ্রেফতার ৩

চাষাঢ়ায় ফিল্মি স্টাইলে তান্ডব চালিয়ে এক ব্যক্তির উপর হামলাকারি সেই কিশোর গ্যাংয়ের প্রধান অনিকসহ তিনজনকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব। এসময় তাদের হেফাজত থেকে ৬০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়।

বুধবার (১৬ ডিসেম্বর) দিবাগত রাত একটায় নগরীর ২ নং রেল গেইটের গোল চত্ত্বরের পশ্চিম পার্শ্বে একটি খাবারের দোকানের সামনে থেকে তাদের গ্রেফতার করে র‍্যাব-১১।

গ্রেফতারকৃতরা হল, সদর থানার আমলাপাড়া এলাকার মো. ইসলামের ছেলে অনিক (২০), ফতুল্লার কায়েমপুর এলাকার মহসিনের ছেলে রবিন (১৯) ও অপ্রাপ্ত বয়স্ক কিশোর (১৬)।

র‍্যাব-১১ এর সিনিয়র এএসপি মো. সুমিনুর রহমান স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানান।

সুমিনুর রহমান জানান, গ্রেফতারকৃতরা দুষ্কৃতিকারী ও কিশোর গ্যাংয়ের সদস্য। তারা দীর্ঘদিন যাবৎ রাস্তা-ঘাটে পরিকল্পিতভাবে দলবদ্ধ হয়ে সংঘাত ও ত্রাস সৃষ্টিসহ নিয়মিত ইয়াবা সেবন করে আসছিল। তাদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগ পেয়ে র‍্যাব-১১ তদন্তে নামে। তদন্তে সত্যতা পেয়ে অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এসময় তাদের কাছ থেকে ৬০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন বলে জানান তিনি।

উল্লেখ্য গত ১৫ ডিসেম্বর সাড়ে আটটার দিকে আলমগীর হোসেন (৩৫) নামে এক ব্যক্তি পপুলার ডায়াগনস্টিক সেন্টারের সামনে থেকে হেঁটে রাস্তা পার হচ্ছিলেন। এসময় শহরের আমলাপাড়া মাছুয়াপাড়া এলাকার ইসলাম মিয়ার বখাটে ছেলে অনিক (১৭) ও তার এক বন্ধু মোটর সাইকেল বেপরোয়াভাবে চালিয়ে যাওয়ার সময় তার শরীরে ধাক্কা লাগে এবং তিনি ব্যথা পান। এতে আলমগীর প্রতিবাদ করলে অনিক তাকে চড় থাপ্পড় মারে। এতে উভয়ের মধ্যে বাকবিতন্ডা হয়। এক পর্যায়ে অনিক ও তার বন্ধু বাহার নামে তাদের এলাকার কথিত বড় ভাইসহ কয়েকজনকে ফোন করলে মূহুর্তের মধ্যে তিনটি মোটর সাইকেলে চড়ে ছয় সাতজন ঘটনাস্থলে এসে উপস্থিত হয়। এরপর সবাই মিলে তাকে প্রায় পনের মিনিট এলোপাতাড়ি চড় থাপ্পর ঘুষি লাথি মেরে আহত করে। দুই তিনজন তাদের মাথার হেলমেট খুলে সেটি দিয়ে তার মাথায় একের পির এক আঘাত করে। তার জামা কাপড় টেনে হেঁচড়ে ছিড়ে ফেলে। এক পর্যায়ে তার শার্টের পকেটে রাখা সাড়ে আট হাজার টাকা ছিনতাই করে হুমকি দিয়ে চলে যায় হামলাকারিরা। এ সময় বংগবন্ধু সড়কে প্রায় বিশ পঁচিশ মিনিট যানজট সৃষ্টি হয়। ভোগান্তিতে পড়েন বিভিন্ন পরিবহনের যাত্রীরা। এ ঘটনা বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশ হলে তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়। বিষয়টি প্রশাসনের নজরে আসলে কিশোর গ্যাং সদস্যদের গ্রেফতার করতে তৎপরতা শুরু করে পুলিশ ও র‌্যাবসহ আইন শৃংখলা বাহিনীর বিভিন্ন সংস্থা।

উপরে