NarayanganjToday

শিরোনাম

‌মৌ‌মিতার উপর ক্ষে‌পে‌ছেন ডি‌সি


‌মৌ‌মিতার উপর ক্ষে‌পে‌ছেন ডি‌সি

যখনই মেট্রোহল দিয়ে আসি তখনই দেখি মৌমিতার ৩টি বাস দিয়ে আমার গাড়ি আটকিয়ে দিয়েছে। আমার সঙ্গে থাকা পুলিশ যখন নামে তখন হয়ত একটু তারা রাস্তা ছাড়ে। আবার মনে মনে ভাবি নিজেই মারবো কিনা? পরে ভাবি জেলা ম্যাজিস্ট্রেট হয়ে নিজে কিভাবে মারি? আমি যদি মারি তাহলে বিচার কে করবে? এটা ভেবে থেমে যাই।

বৃহস্পতিবার(২২ অক্টোবর) সকালে জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় নারায়ণগঞ্জ থেকে ঢাকা রুটে চলাচল করা মৌমিতা পরিবহনের উপর ক্ষোভ প্রকাশ করে নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসক জসিম উদ্দিন একথা বলেন। এসময়  মৌমিতা পরিবহনের বিরুদ্ধে অভিযান চালানার জন্য অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেটকে নির্দেশ দেন তিনি।

তিনি আরো বলেন, পরিবহন সংগঠনগুলোতে গাড়ির মেইনটেইন্সের জন্য একটা অংশ বরাদ্দ থাকে। এই মেইনটেইন্সের টাকা থেকেই অনিয়ম শুরু। এগুলো আজকের থেকে নয় আরো ৫০ বছর আগের থেকেই এই অনিয়ম শুরু। পরে জিহ্বায় টক আসতে আসতে অনেক বড় টক এসে যায়।

তিনি আরো বলেন,প্রতিটি মৃত্যু বেদনা, আমরা এমন একটি মৃত্যুও চাই না। এই করোনাকালীন সময়েও সড়ক দুর্ঘটনা থেমে নেই। এই  সড়ক দুর্ঘটনা রোধে সবাইকে নিজ নিজ জায়গা থেকে সচেতন হবে।  মিটিংয়ে সচেতনতা দেখালেই হবে না, নিজ নিজ জায়গা থেকে দায়িত্ব পালন করতে হবে। আমি ট্রাফিক লাইটের ব্যবস্থা করতে সিটি করপোরেশনকে  চিঠি দেবো।

এসময় সভায় অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট খাদিজা তাহেরা ববির সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) মোস্তাফিজুর রহমান। আরো উপস্থিত ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি খালেদ হায়দার খান কাজল, নারায়ণগঞ্জ সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী জহিরুল ইসলাম, নারায়ণগঞ্জ বিআরটিএ এর সহকারী পরিচালক (ইঞ্জি) সৈয়দ আইনুল হুদা চৌধুরী, জেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক কমিটির সভাপতি মো. শামসুজ্জামান, নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা) নারায়ণগঞ্জ জেলা সভাপতি ডা. আল ওয়াজেদুর রহমান, জেলা ট্রাক ট্যাংক-লরী শ্রমিক ইউনিয়নের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন প্রমুখ।

উপরে